যখন যৌনাঙ্গ আটকে যায় উত্তেজনাবর্ধক ওষুধের বোতলে

550

যৌন উত্তেজনাবর্ধক ওষুধের ক্ষমতা দেখতে গিয়ে বমাল হাসপাতালে গেলেন প্রৌঢ়। গোপনাঙ্গ বোতলের মুখে প্রবেশ করিয়ে শেষ পর্যন্ত হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে টানা ২ ঘণ্টা থাকতে হল এক বয়স্ক ব্যক্তিকে।

বুধবার ভারতের জলপাইগুড়ির কোতয়ালি থানার অন্তর্গত কাগিলা হাট এলাকার এই খবরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কাগিলা হাটের ওই ব্যক্তির বাড়িতে স্ত্রী, পুত্র, পুত্রবধূ রয়েছেন। বিজ্ঞাপনে কামোত্তেজক ওষুধের খবর পড়ে দোকান থেকে নিজেই তা কিনে আনেন মঙ্গলবার। নিজের উপরে বুধবার বিকেলে প্রয়োগ করেন অত্যন্ত গোপনে। বাড়ির আম বাগানে চলে যান চুপিসারে। গোপন অঙ্গে প্রথমে সেই ওষুধ মাখিয়ে নেন। তারপরে বোতলের সরু মুখে গোপনাঙ্গ প্রবেশ করান।

এইভাবে প্রায় আধ ঘণ্টা থাকার পরে অঙ্গটি রীতিমতো ফুলে ওঠে। প্রচণ্ড কষ্ট অনুভব করতে থাকেন। কিন্তু অনেক চেষ্টাতেও বোতল থেকে মুক্তি পাননি। শেষ বিপদ বুঝে বাড়ির কাউকে না জানিয়ে ওই অবস্থায় সটান চলে আসেন জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে।

জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালের চিকিৎসক সৌরেন মণ্ডল জানিয়েছেন, রোগীর আচরণ তারা স্তম্ভিত হয়ে পড়েন।

সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ ওই ব্যক্তিকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়। বাইরে থেকে গ্যাস কাটার আনা হয়। বোতল কাটা হয়। তারপর চিকিৎসা করে রোগীর গোপন অঙ্গটিকে মারাত্বক সংক্রমণ থেকে বাঁচানো গিয়েছে। এখন ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছেন রোগী।

Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন: