মিতু হত্যা: সিসিটিভির ফুটেজে দেখা সেই যুবক আটক

121
bdtruenews24.com

পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সিসিটিভির ফুটেজে দেখা সেই যুবককে আটক করার দাবি করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি ইউনিট। খুনের দিন ওই যুবক সাদা গেঞ্জি পরা অবস্থায় ছিল। তার পিঠে একটি ব্যাগ ছিল। হাতেও ছিল একটি ব্যাগ। এই যুবককে একটি বিশেষ কৌশলে চট্টগ্রামের জিওসি মোড় এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার আটক করতে সক্ষম হয়েছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

আটক যুবকের নাম মনির হোসেন। সূত্র জানায়, ৫ জুন ঘটনার সময়ের সিসিটিভি ফুটেজে মনির হোসেনকে দেখা গেছে। তাকে ধরতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক ইউনিট মাঠে সর্বাত্মক অভিযান চালায়। এর একপর্যায়ে তাকে আটক করা সম্ভব হয়। মনিরের গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর লক্ষ্মীপুরে।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলেছেন, সিসিটিভির ফুটেজের সঙ্গে কারও চেহারা হুবহু মিলে গেছে এমন একজনই হলেন মনির হোসেন। আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করে তার কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, আটক মনির হোসেনকে হত্যাকাণ্ডের সময়ের সিসিটিভির ফুটেজ দেখানো হয়েছে। এ সময় সে অকপটে স্বীকার করেছে ফুটেজে থাকা ছবিটি তারই। ঘটনার সময় সে ওই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল বলেও স্বীকার করে। তবে অন্যদের ছবি দেখানো হলে সে তাদের চেনে না বলে দাবি করেছে। কিন্তু খুনের সময় সে ঘটনাস্থলের দিকে যাচ্ছে এমন ছবি ও ফুটেজ দেখানো হলে মনির আঁতকে ওঠে। তখন সে দাবি করে, সে একটি বেসরকারি হাসপাতালের কর্মচারী।

সম্প্রতি স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় জেল খেটে জামিনে বেরিয়ে এসেছে। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ফুটেজ দেখে মনিরের উপস্থিতির বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছেন। দীর্ঘ সময় নিয়ে তারা ছবি মিলিয়ে দেখেছেন। বারবার ছবি মিলিয়ে দেখার পর ফুটেজ দেখানো হয় মনিরকেও। এ সময় মনির বলে, এটা তারই ছবি। ঘটনার সময় সে এই রোড দিয়েই যাচ্ছিল।

Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন: