ভারতে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনতে পারবে ছেলেরাও

78
bdtruenews24.com

ভারতের কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনও ছাত্র যৌন হেনস্থার শিকার হলে তারাও এবার থেকে অভিযোগ দায়ের করতে পারবে। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের পুরনো নিয়ম অনুযায়ী এতদিন শুধু ছাত্রী বা নারী শিক্ষক-কর্মীরাই যৌন হেনস্থার অভিযোগ জানাতে পারতেন। তবে বছর কয়েক আগে দিল্লির একটি কলেজের দুই ছাত্র তাদের এক শিক্ষিকার দ্বারা যৌন হেনস্থার শিকার হওয়ার পরেই নিয়ম বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন।

তাদের নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, প্রতিটি কলেজ–বিশ্ববিদ্যালয়কে এখন থেকে নারী-পুরুষ বিচার না করেই যৌন হেনস্থার অভিযোগকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে। শুধু নারী বা পুরুষ নয়, তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তিরাও যাতে যৌন হেনস্থার শিকার না হন, সেই ব্যাপারেও কঠোর হতে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে নির্দেশ দিয়েছে কমিশন।

যৌন হেনস্থা রোধে আরও কিছু নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে একই নির্দেশিকায়। যেমন, এখন থেকে শুধু হেনস্থার শিকার হওয়া ব্যক্তিই নয়, ৯০ দিনের মধ্যে অভিযোগ দায়ের করতে পারবে তার অভিভাবকরাও। এই নতুন নিয়ম সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের নারী আন্দোলনের নেত্রী অধ্যাপিকা শাশ্বতী ঘোষ বিবিসিকে বলছিলেন, “ছেলেদেরও যে যৌন হেনস্থার থেকে রক্ষা করার উদ্যোগ ইউ জি সি নিয়েছে, সেটা ভাল কথা। কিন্তু বাস্তবটা তো হল ছাত্রীরাই বেশি যৌন হেনস্থার শিকার হন। বিশেষত গবেষণার সময়ে অনেক পুরুষ অধ্যাপকই এধরণের সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করেন। তাই ছাত্রীদের বা নারী শিক্ষক-কর্মচারীদের অভিযোগগুলোর দিকে যেন বেশী নজর থাকে।“

যৌন হেনস্থা রোধে যে অভ্যন্তরীণ কমিটি তৈরী করার নিয়ম রয়েছে ভারতের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে, সেগুলোকে আরও সচল করার কথাও বলেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন। আর কমিশন নির্দেশ দিয়েছে যৌন হেনস্থা রোধে তাদের নির্দেশিকা না মানা হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়গুলির বিরুদ্ধে– যার মধ্যে মঞ্জুরীর বরাদ্দ টাকা কেটে নেওয়ার মতো শাস্তিও রয়েছে। বিবিসি

শেয়ার করুন :
Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন:

Loading Facebook Comments ...