ভারতে কৃত্রিম রং ও উপাদানে তৈরি হচ্ছে মধু

75
bdtruenews24.com

পুরনো আমল থেকেই স্বাস্থ্যরে যত্নে মধুর ব্যবহার চলে আসছে। তাই খাঁটি মধু অতি জরুরি বলে বিবেচিত হয়। কিন্তু বাজারে সুদৃশ্য বোতল বা বয়ামে রাখা মধু কি আসলেই খাঁটি?

ভারতের কেরালার কাক্কান্দের একটি গবেষণাগারের পরীক্ষায় দেখা গেছে, বাজারে বিক্রি হওয়া বহু মধুতে কৃত্রিম রং ও উপাদান মিশ্রিত রয়েছে। রংয়ের জন্যে টার্টরাজিন, সানসেট ইয়েলো, কার্মোজাইন এবং পনকিয়াও ৪আর ব্যবহার করা হয়। ভারতের বিভিন্ন স্থান থেকে মধু সংগ্রহ করে পরীক্ষার পর এসব তথ্য বেরিয়ে এসেছে। মধুতে কৃত্রিম রং ও উপাদান ব্যবহার করা হয় বলে অসংখ্য অভিযোগের ভিত্তিতেই এ গবেষণাটি পরিচালিত হয়। এসব উপাদানের সঙ্গে চিনির মিশ্রণে অনেক প্রতিষ্ঠান কৃত্রিম মধু তৈরি করছে। এসব তথ্য দেন এর্নাকুলামের ফুড সেফটি কমিশনার শিবু কে ভি।

ভারতের ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডর্ডস রেগুলেশন, ২০১১ অনুযায়ী মধুতে কৃত্রিম রং ব্যবহার নিষিদ্ধ। মধুর মতো কোনো খাবারকে সরাসরি মধু বলা অবৈধ বিবেচিত হবে। গবেষণাগারে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মধু পরীক্ষার জন্যে সংগ্রহ করা হয়েছে।

কমিশনার জানান, এসব মধুতে কৃত্রিম রং বা উপাদান পাওয়া গেলে প্রয়োজনে সব মধুই অবৈধ বলে ঘোষিত হতে পারে। মধুর মতো বহুল ব্যবহৃত একটি পণ্য নিয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের কর্তৃপক্ষের এ উদ্যোগ নেওয়া বলে মনে করেন তিনি। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন: