বর্ষা মৌসুমে সৌখিন মৎস্য শিকারীদের হাতে ধর্মজাল

84

এম আর লিটন, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: মাছ ধরার এক প্রকার যন্ত্র ধর্মজাল। এই মাছ ধরার যন্ত্রটি মানিকগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে খাল, বিল, নদী, নালা এবং বিশেষ করে বর্ষার মৌসুমে বিভিন্ন রাস্তার পাশে এ জাল দিয়ে পানির উপর বাঁশের মাঁচাল পেতে মাছ ধরতে দেখা যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়, মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলাধীন পায়লা, সাইলকাই, বাইলজুরি, তেরশ্রী গ্রামে রাস্তার পাশে বর্ষার পানিতে মাঁচাল পেতে ধর্মজাল দিয়ে মাছ ধরছে অনেক লোক।

পয়লা গ্রামে ধর্মজাল দিয়ে মাছ ধরেন মো. নতুবালী (৫৫) বললেন, “মাছ ধরা আমার পেশা না কিন্তু প্রতিবছর বর্ষা আসলে আমি শখ করে ধর্মজাল দিয়ে মাছ ধরি। এতে যে মাছ পাই তাতে আমার পরিবারে আর মাছ কিনে খেতে হয় না এবং মাছ যেদিন বেশি ধরা পড়ে সেদিন বিক্রি করি। এ বছর প্রায় ৩ হাজার টাকার মাছ বিক্রি করেছি।”

তিনি আরো বলেন, “ধর্মজাল দিয়ে মাছ ধরা আরামদায়ক ও মজার ব্যাপর। যখন জালটি পানি থেকে উপরে উঠানো হয় তখন মাছ জালে ধরা পড়লে অনেক লাফা-লাফি করে, সেই দৃশ্য দেখতে ভালো লাগে।

তার কাছ থেকে আরো জানতে পারি, এ জাল হাতে বুনাতে বা তৈরি করতে প্রায় ছয় থেকে এক বছর সময় লাগে, জাল বুনাতে ২০০ থেকে ৫০০ গ্রাম নাইলন সুতা প্রয়োজন হয়। কিন্তু বর্তমানে মেশিনে তৈরি ধর্মজাল হাট-বাজারে পাওয়া যায়। এ জাল হাতে মেপে তৈরি করা হয়। জালটি চার পাশ একই সমান, জালগুলো বাজেরে পাঁচশত থেকে একহাজার পর্যন্ত বিক্রি হয়ে থাকে। ধর্মজাল দিয়ে মাছ ধরতে অনেকগুলো বাঁশের প্রয়োজন হয়ে থাকে।

শেয়ার করুন :
Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন:

Loading Facebook Comments ...