প্লাস্টিক মাছদের ফাস্ট ফুড!

97
bdtruenews24.com

সারা বিশ্বে প্লাস্টিক ব্যবহার দিনে দিনে যেন বেড়েই চলেছে। আর এ কারণে নদী-নালা কিংবা সমুদ্রের পানিতে গিয়ে মিশছে প্লাস্টিকের খণ্ডাংশ। মাছেরাও এ প্লাস্টিকগুলোকে খেতে বেশ পছন্দ করছে। সম্প্রতি গবেষকরা জানিয়েছেন, কিছু মাছ প্লাস্টিক খেতে এত পছন্দ করে যে তা যেন তাদের ফাস্ট ফুড। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিবিসি।

সমুদ্রের কিছু অল্পবয়সী মাছ প্লাস্টিক খেতে এত পছন্দ করে যে তা তরুণদের ফাস্ট ফুড খাওয়ার সঙ্গেই তুলনীয়। সম্প্রতি এ তথ্য জানিয়েছেন সুইডিশ গবেষকরা। সায়েন্স জার্নালে এ বিষয়ে একটি গবেষণাপত্রও তারা উপস্থাপন করেছেন, যেখানে তুলে ধরা হয়েছে প্লাস্টিকের ভয়াবহ প্রতিক্রিয়ার কথা। মাছেদের দেহে এসব প্লাস্টিক বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করছে। তবে শুধু সেখানেই শেষ নয়। পরবর্তীতে যখন মানুষ প্লাস্টিক ভক্ষক মাছগুলো খায় তখন সে প্লাস্টিক মানুষের দেহেও প্রবেশ করে। এটি মানুষের স্বাস্থ্যের জন্যও ক্রমে মারাত্মক হুমকি হয়ে উঠছে।

এ শতাব্দির মাঝামাঝিতে সমুদ্রের মাছের চেয়ে পৃথিবীতে প্লাস্টিক বর্জ্যের সংখ্যা বেশি থাকবে বলে সতর্ক করেছেন গবেষকরা। বিশ্বব্যাপী মানুষ যে পরিমাণ প্লাস্টিক সামগ্রী ব্যবহার করছে, তাতে এমন ভবিষ্যৎই নাকি অপেক্ষা করছে মানবজাতির জন্য। সম্প্রতি বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে এমন সতর্কবার্তা দিয়েছে ‘এলেন ম্যাকআর্থার ফাউন্ডেশন’।

162426_89865737_lonnstedt4hr

গবেষকরা বলছেন, প্লাস্টিক যেহেতু সহজে ধ্বংস হয় না, তাই এর ব্যবহার একসময় বিশ্বের জন্য বিপর্যয় ডেকে আনবে। কিন্তু সমুদ্রের মাছের সঙ্গে তুলনা কেন? সম্প্রতি জর্জিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জেনা জ্যামবেক যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রান্সিসকোর সমুদ্র তীরবর্তী এলাকার ওপর গবেষণা করে যে ধরনের তথ্য দিয়েছেন, তা এলেন ম্যাকআর্থার ফাউন্ডেশনের সঙ্গে মিলে যাচ্ছে।

সেই গবেষণায় বলা হয়েছে, ২০৫০ সাল নাগাদ ৭৫০ মিলিয়ন টনের মতো প্লাস্টিক বর্জ্য সমুদ্রে ভাসবে। তা মাছের চেয়ে বেশি হবে কি না, তা নিয়ে বিতর্ক থাকলেও প্লাস্টিক যে আগামীর পৃথিবীর জন্য হুমকি, সে বিষয়ে একমত বিজ্ঞানীরা। কারণ প্লাস্টিক টিকে থাকে শত শত বছর। আর এর ব্যবহার দিনকে দিন বাড়ছেই। আর এর প্রভাবে মানুষও ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। –

Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন: