নাসিরের সাথে নিয়মিত সেক্সের কথা ফাঁস করলো গার্লফ্রেন্ড হোমায়রা ( ভিডিও )

নাসিরের সাথে নিয়মিত সেক্সের কথা ফাঁস করলো গার্লফ্রেন্ড হোমায়রা সুবাহ

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম একটি আলোচিত মুখ নাসির হোসেনের। কখনও ব্যাটহাতে আবার কখনও মাঠে দুর্দান্ত ফিল্ডিং করে বহুবার তিনি জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়েছেন দলকে, নজর কেড়েছেন গোটা বিশ্বের। তবে মাঠে ছন্দে থাকার পাশাপাশি নাসির বিভিন্ন ‘কাণ্ডে’ সমালোচনার শিকারও হয়েছেন অনেকবার। সেই ধারাবাহিকতায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এবং ইউটিউবে আবারও আলোচনায় এসেছেন এই টাইগার ক্রিকেটার।

সম্প্রতি ফেসবুক এবং ইউটিউবে দু’টি অডিও আপ করেন এক তরুণী। তরুণীর নাম হোমায়রা সুবাহ। যা ইতিমধ্যে বিভিন্ন মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে। ফেসবুক লাইভের একটি অডিওতে নিজেকে নাসিরের গার্লফ্রেন্ড পরিচয় দিয়ে বলতে শোনা গেছে ঐ তরুণীকে।

অন্যদিকে, নাসিরের এই ‘কেলেঙ্কারি’তে সমালোচনার ঝড় উঠেছে টাইগার ভক্তকূলে। অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বাংলাদেশের বিধ্বস্ত হওয়ার রেশ টেনেছেন নাসিরের এই ভাইরাল হওয়া ইস্যুতে। নাসিরের এই ‘কাণ্ড’ টাইগারদের সামাজিক অবক্ষয়ের কিছুটা নমুনা হিসেবে উল্লেখ করেছেন তারা।

আগের এক লাইভ ভিডিওতে হোমায়রা সুবাহ বলেন,

আমি হয়তো জিকুর মতো নেশা করতে পারব না। আমি নিজেকে জাস্ট শেষ করে দিব। অনেকবার ট্রাই করছিলাম মরার জন্য। মরতে পারি নাই।

হয়তো কাউকে ভালো না বেসে মরতে চাইছি তো বাবা-মায়ের ওপর রাগ করে ওজন্য মরতে পারি নাই। কিন্তু আর আমার বাঁচার শক্তি নাই। প্রতিটা মুহূর্ত অপমান হওয়া, ছোট হওয়া, নিজেকে আর কতোখানি ছোট করব ওর কাছে? ও ক্রিকেটার হইছে তো কি হইছে?

আমিও একটা মানুষ। আমি ওকে ডাকি নাই, ও নিজে আসছে আমার কাছে। এসে ফ্রেন্ডশিপগিরি করতে আসছে। ছেকা খেয়ে আসছে। কোন প্রেসিডেন্টের নাতনীর, কোন হচ্ছে মন্ত্রীর বেটির সেই শেখা খেয়ে আসছে। সেই শেখা খেয়ে, আমি হয়তো ভাবছি ও ছেকা খেয়ে আসছে, জিকুও তো এরকম ছিল। তাই না ফ্রেন্ডশিপ করছি। কিছু বলি নাই, চুপচাপ, মুখ বন্ধ করে ছিলাম এতোদিন। কিন্তু আর ধৈয্য ধরতে পারতেছি না। আমি নাম বলবো না ওর। আপনারা ওর নাম বুজে নেন। আমি কারও নাম বলব না। আমি হ্যাপি না। আমি কারও নাম বলবো না। কিন্তু এটুকুই বলব ও আমাকে ভালোবাসাইছে, ভালোবাসতে বাধ্য কছে যেটা করার জন্য যা যা করার করছে।

আজ ও স্বপ্ন দেখে মন্ত্রীর, হচ্ছে কি হবে? জামাই হবে। প্রেসিডেন্টের নাতী জামাই হবে না। এতোই ইজি, এতোই ইজি? এতোই ইজি হলে তো সব আমার হাতের মুঠোয় চলে আসতো। আমি এতো ভালো ফ্যামিলির মেয়ে, তাহলে তো আমি ওকে পাইয়াই যাইতাম। ও আমার সাথে নাটক করতো? করতো না।

শেয়ার করুন :
  • 37
    Shares
Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন:

Loading Facebook Comments ...