প্রচ্ছদ বিশ্ব সংবাদ

ইরানের উপর দিয়ে মার্কিন বিমান চলাচল বাতিল

38

ইরান নিয়ন্ত্রিত জলসীমার উপর দিয়ে মার্কিন বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে বৃহস্পতিবার এক জরুরি নির্দেশ জারী করেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান চালনা প্রশাসন এফএএ। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে হরমুজ প্রণালী ও ওমান উপসাগরের ওপরে আকাশ দিয়ে মার্কিন বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারী করে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা এফএএ।

ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের যেসব ফ্লাইট যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি ও ভারতের মুম্বাইয়ের মধ্যে চলাচল করে সেগুলো বাতিল করার কয়েক ঘণ্টা পরে এই নিষেধাজ্ঞা জারী করা হয়। ওই ফ্লাইটগুলোর গতিপথ ইরানের উপর দিয়ে যাওয়ায় নিরাপত্তার খাতিরে সেগুলো বাতিল করা হয়। বৃহস্পতিবার ইরান আকাশসীমা লঙ্ঘনের অভিযোগে একটি মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করার পর নেয়া হয় এই সিদ্ধান্ত।

এক মার্কিন মুখপাত্র জানিয়েছেন, মুম্বাই থেকে নিউজার্সির নিওয়ার্কে যাচ্ছেন যে যাত্রীরা তাদের বিকল্প ফ্লাইটে আমেরিকায় নিয়ে আসার ব্যবস্থা করা হবে। তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের সমস্ত বিকল্প ব্যবস্থাগুলো প্রয়োগ করছি এবং প্রাসঙ্গিক সরকারি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নিবীড় যোগাযোগ রেখে চলছি। গ্রাহকদের যাতে সবচেয়ে ভালো ভ্রমণ অভিজ্ঞতা হয়, এই পরিস্থিতিতেও আমরা সেই চেষ্টা করছি।’

বৃহস্পতিবার, দুই অন্য বিমান পরিষেবা সংস্থা, আমেরিকান এয়ারলাইন্স ও ডেল্টা এয়ারলাইন্স জানিয়ে দিয়েছে, তারাও ইরানের উপর দিয়ে যাবে না। জাপানি বিমান পরিষেবা সংস্থা জাপান এয়ারলাইন্স এবং এএনএ হোল্ডিংস আইএনসিও জানিয়েছে, তারা ওই এলাকা দিয়ে যাবে না। সর্বোচ্চ ৬০,০০০ ফুট উচ্চতায় উড্ডয়ন ক্ষমতাসম্পন্ন গ্লোবাল হক ড্রোনকে ক্ষেপণাস্ত্র মেরে নামিয়ে এনেছে ইরান। বিশ্ব তেল সরবরাহের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপসাগরীয় অঞ্চলে সম্প্রতি বেশ কয়েকটি আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে কয়েকটি তেলের ট্যাঙ্কারে বিস্ফোরক হামলার ঘটনা।

এফএএ জানিয়েছে, ফ্লাইট চিহ্নিতকারী অ্যাপের সাহায্যে দেখা গেছে, ইরানের মাটি থেকে আকাশমুখী ক্ষেপণাস্ত্র গ্লোবাল হক ড্রোনকে নামানোর সময় সবচেয়ে কাছের যাত্রীবাহী বিমান ছিল মাত্র ৪৫ নটিক্যাল মাইলের মধ্যে। অন্য দেশের এয়ারলাইন্সের ক্ষেত্রে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা কার্যকরী নয়। কিন্তু বিমান চলাচলকারী সংস্থাগুলোকে নির্দেশনা দানকারী অপসগ্রুপ জানিয়েছে, বিশ্বব্যাপী সব বিমান পরিষেবা সংস্থাকেই এটা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকতে হবে।

আরও পড়ুন   ইরানের বিরুদ্ধে যেসব ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে তা মস্কো সমর্থন করছে না
Loading Facebook Comments ...