আরব আমিরাতে বাংলাদেশি যুবক খুন

24
জেলা শহরের ইনাতাবাদ এলাকার জহুর আলী (২৮) নামে এক যুবককে আরব আমিরাতের শারজায় হত্যা করা হয়েছে। তিনি হবিগঞ্জ শহরের ইনাতাবাদ গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর পুত্র।

নিহতের বড় ভাই জনাব আলী জানান, শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে তার মৃত্যুর খবর বাড়িতে আসে। তিনি আরো জানান, ১৩ বছর আগে জীবিকার তাগিদে আরব আমিরাতের সারজায় যান জহুর আলী। কয়েক বছর আগে সে দেশে এসে তেঘরিয়া গ্রামের শফিক মিয়ার কন্যা ফাহিমা আক্তারকে বিয়ে করেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের একটি পুত্র ও একটি কন্যা সন্তান জন্ম গ্রহণ করে।

জহুর আলী শারজা শহরের একটি কোম্পানিতে শ্রমিকের কাজ করতেন। গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে তিনি আর বাসায় ফিরে আসেননি। তার মোবাইল ফোনটিও তখন বন্ধ পাওয়া যায়।
শুক্রবার সকালে বাসা থেকে দুই কিলোমিটার দূরে একটি নির্জন স্থানে জহুর আলীর লাশ পাওয়া যায় বলে তার পরিবারকে জানায় সহকর্মীরা। আরব আমিরাতের পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে শারজা মেডিকেলে নিয়ে যায়। স্থানীয় পুলিশ এই খুনের তদন্ত করছে।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি ইয়াছিনুল হক জানান, শারজায় হবিগঞ্জের যুবকের মৃত্যুর কথা তিনি শুনেছেন। -বাসস।

Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন: