আন্দোলনের মুখেই নার্স নিয়োগ পরীক্ষা সম্পন্ন

53
bdtruenews24.com

আন্দোলন ও পরীক্ষা বর্জনের হুমকি দিয়েও দাবি আদায় করতে পারেননি চাকরিপ্রত্যাশী বেকার নার্সরা। তাঁদের বিক্ষোভের মুখেই গতকাল শুক্রবার সকালে ‘সিনিয়র স্টাফ নার্স’ পদে নিয়োগ পরীক্ষা নিয়েছে সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)। এ পরীক্ষা বাতিলের দাবিতেই তিন মাস ধরে আন্দোলন করছিল বেকার নার্সদের দুটি সংগঠন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বেকার নার্সদের এই আন্দোলনের পেছনে বিএনপির উসকানি আছে বলে দাবি করেছেন।

গত ২৮ মার্চ ৩ হাজার ৬১৩টি শূন্যপদে ‘সিনিয়র স্টাফ নার্স’ হিসেবে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেয় পিএসসি। পরীক্ষায় ১০০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষার নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরপরই নিয়োগ প্রক্রিয়াটি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনে নামে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা বেকার নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিডিবিএনএ) ও বাংলাদেশ বেসিক গ্র্যাজুয়েট নার্সেস সোসাইটি (বিবিজিএনএস)। আন্দোলনে নামলেও অধিকাংশ বেকার নার্সই চাকরির জন্য ওই নিয়োগ পরীক্ষায় আবেদন করেন। আন্দোলনের একপর্যায়ে গত ৯ মে পিএসসি পরীক্ষার শর্ত শিথিল করে ১০০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষার পরিবর্তে ১০০ নম্বরের বহুনির্বাচনী ও মৌখিক পরীক্ষার নির্দেশনা জরি করে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, সিনিয়র স্টাফ নার্স পদটি তৃতীয় শ্রেণি থেকে দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করায় পরীক্ষা ছাড়া নিয়োগের সুযোগ নেই। তারপরও ঢাকা নার্সিং কলেজের সামনে আন্দোলন অব্যাহত রাখেন বেকার নার্সরা। গতকাল শুক্রবার সকালে তাঁরা নিয়োগ পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দেন।

কিন্তু পূর্বঘোষণা অনুযায়ী সকাল ১০টায় পরীক্ষা শুরু হয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ৩ হাজার ৬১৩টি পদের জন্য ১৮ হাজার ৬৩ জন আবেদন করেছিলেন। এর মধ্যে ১১ হাজার ৪২৬ জন পরীক্ষায় অংশ নেন। পরীক্ষা যথাসময়ে শুরু ও শেষ হয়েছে।

বিবিজিএনএসের সভাপতি রাজীব কুমার বিশ্বাস বলেন, দেশে বেকার নার্সের সংখ্যা ২১ হাজার ৫০০। তাঁদের মধ্যে যাঁরা পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন, তাঁদের মোট উপস্থিতি কোনোভাবেই ৩০ শতাংশের বেশি হবে না। পুলিশের হামলা ও মামলার আতঙ্কে বেলা তিনটায় ঢাকা নার্সিং কলেজের সামনে থেকে অবস্থান তুলে নেওয়া হয়। বিকেল পাঁচটায় (গতকাল) সার্বিক বিষয় নিয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন করার কথা থাকলেও পুলিশ তা করতে দেয়নি। তিনি বলেন, আজ শনিবার সকালে সংবাদ সম্মেলন করে পরবর্তী করণীয় জানানো হবে।

এদিকে গতকাল দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম তাঁর বাসভবনে সাংবাদিকদের বলেন, পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। তবে বেকার নার্সদের এই আন্দোলনের পেছনে বিএনপির উসকানি আছে।

শেয়ার করুন :
Follow Facebook

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন:

Loading Facebook Comments ...